রামুতে বৌদ্ধ মন্দিরের পুনর্নিমাণে জার্মান সাহায্য
বার্লিনের জানালা, বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৩


রামুতে সাম্প্রদায়িক হামলায় ধ্বংস হওয়া একটি বৌদ্ধ মন্দির পুনর্নিমাণের জন্য ৫২ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছে জার্মান সরকার৷ ঢাকায় চুক্তি সইয়ের পর রাষ্ট্রদূত ড. আলব্রেশট কনৎসে বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ৷
গত বছরের ২৯শে সেপ্টেম্বর রাতে কক্সবাজারের রামু বৌদ্ধ বসতিতে সাম্প্রদায়িক হামলায় ১২টি মন্দির এবং ৩০টি বাড়ি ধ্বংস হয়৷ আর তা নিয়ে সারা দেশে ওঠে প্রতিবাদের ঝড়৷ যা বিশ্ববাসীকেও নাড়া দিয়েছে৷ জার্মানিও তার ব্যতিক্রম নয়৷
জার্মানির একটি প্রতিনিধি দল এবং রাষ্ট্রদূত ড. আলব্রেশট কনৎসে রামুর ক্ষতিগ্রস্ত বৌদ্ধ পল্লি পরিদর্শন করেন৷ তাঁরা সেখানকার লোকজনের সঙ্গে কথা বলে রামুর জেটোবন বৌদ্ধমন্দির পুনর্নিমাণে সহায়তা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন৷ রাষ্ট্রদূত ড. কনৎসে বলেন, ঐ হামলা ছিল ভয়াবহ৷ এবং এর প্রভাব ছিল অনেক৷ কিন্তু বাংলাদেশ সরকার যে ভাবে দ্রুত তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে তা প্রশংসার দাবিদার৷
তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ৷ আর বাংলাদেশে একটি ধর্ম প্রধান৷ কিন্তু অন্য ধর্মাবলম্বীদের স্বাধীনভাবে ধর্ম পালনের অধিকারই হল ধর্ম নিরপেক্ষতা৷ জার্মানি এই আদর্শের পক্ষে৷
চুক্তিসই অনুষ্ঠানে জানানো হয়, রামুর জেটোবন বৌদ্ধমন্দির পুনর্নিমাণের মূল কাজ বাংলাদেশ সরকারের উদ্যোগেই হচ্ছে৷ কিন্তু মূল মন্দিরের বাইরে পাঠাগার, বিশ্রামাগার এবং বাদ্যযন্ত্রসহ আনুষঙ্গিক আরো কিছু কাজে অনুদানের অর্থ খরচ করা হবে৷ মন্দিরের পুরোহিত আরিয়াবদি ভিক্ষু অনুদানের জন্য জার্মান সরকারকে ধন্যবাদ জানান৷
তিনি বলেন, জার্মান সরকারের এই অনুদানের কারণে তাঁদের আত্মবিশ্বাস আরো বেড়ে গেছে৷ তাঁরা এখন মনে করেন, সারা বিশ্ব তাঁদের পাশে আছে৷


লিঙ্ক