ইউরোপে হ্রাস পাচ্ছে বাংলাদেশের রপ্তানি পণ্য
বার্লিনের জানালা , বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৮, ২০১৩


বাংলাদেশের অন্যতম রপ্তানি পণ্য তৈরি পোশাকের চাহিদা ইউরোপ ক্রমশ কমে যাচ্ছে এর মূল কারণ বিশ্লেষণ করে জার্মান সংবাদ সংস্থা "ডয়চে ভেলে" সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে, এই প্রতিবেদনটি এখানে পুনপ্রকাশ করা হলো৷ ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশে বাংলাদেশের রপ্তানি কমে যাচ্ছে৷ এর প্রভাব পড়ছে তৈরি পোশাক খাতে৷ রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান সুভাশিস বোস অবশ্য এ কথা স্বীকার করার পর জানিয়েছেন, এতে দেশের মোট রপ্তানি আয় কমেনি৷
বাংলাদেশের রপ্তানি পণ্যের বড় বাজার ইউরোপের দেশগুলো৷ কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে ঐ সব দেশে রপ্তানি কমে যাওয়ার প্রবণতা লক্ষ্য করার মতো৷ গেল বছরে যেখানে বাংলাদেশের মোট রপ্তানির পরিমাণ ছিল ২০,৬৮৯.৭ কোটি টাকা, সেখানে তার আগের বছর মোট রপ্তানির পরিমাণ ছিল ২১,২৪০.২০ কোটি টাকা৷
অর্থাৎ, যেখানে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বাংলদেশের রপ্তানি বাড়ার কথা সেখানে প্রায় ৬০০ কোটি টাকার রপ্তানি কমেছে৷ আর এর জন্য বাংলাদেশ রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান সুভাশিস বোস দায়ী করেন ইউরোপের অর্থনৈতিক মন্দাকে৷ সেখানকার মানুষের ক্রয় ক্ষমতা কমে গেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি৷
এর প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পে৷ কারণ, ইউরোপে বাংলাদেশের প্রধান রপ্তানিজাত পণ্য তৈরি পোশাক৷ সুভাশিস বোস বলেন, বিলাসবহুল গার্মেন্টস পন্য এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সত্য, তবে দৈনন্দিন তৈরি পোশাকের চাহিদা কমেনি৷
অন্যদিকে, বাংলাদেশের আরেকটি রপ্তানিপণ্য চিংড়ি আন্তর্জাতিক বাজারে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে৷ কারণ, ভারতসহ বিভিন্ন দেশ কম খরচে নতুন ধরণের চিংড়ি উৎপাদন করায় প্রতিযোগিতায় মার খাচ্ছে বাংলাদেশের চিংড়ি৷ এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হলে বাংলাদেশকে আবার নতুন করে ভাবতে হবে৷

লিঙ্ক