জার্মান রাষ্ট্রদূতের মন্তব্য হেফাজতের দাবি অসাম্প্রদায়িক চেতনার জন্য হুমকি
সূত্র: প্রথম আলো, মঙ্গলবার, মে ০৭, ২০১৩


ঢাকায় নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত আলব্রেখট কনজে হেফাজতে ইসলামের ১৩ দফা দাবিকে বাংলাদেশের অসাম্প্রদায়িক চেতনার জন্য হুমকি হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। এ হুমকি মোকাবিলায় রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে ঐকমত্য জরুরি বলে তিনি মনে করেন।
আজ মঙ্গলবার রাজধানীতে রাজনৈতিক সংস্কৃতিবিষয়ক এক আলোচনায় আলব্রেখট কনজে এ মন্তব্য করেন। রাজধানীর জার্মানির গ্যেটে ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠিত আলোচনায় অংশ নেন ব্লগার ও সমাজকর্মী শাবানাজ দিয়া, বিটিভির সংবাদ পাঠিকা গুলসেতিন আহমেদ, চলতি বছর বার্লিনে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং চ্যাম্পিয়নশিপে বিজয়ী দুই তার্কিক আকিব হোসেন ও রাতিব আলী। আলোচনায় সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন চলচ্চিত্র নির্মাতা অ্যাডাম দৌলা।
জার্মান রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘ইদানীং আমরা যা দেখছি, তাতে শুধু আমার পশ্চিমা সহকর্মীই নয়, সবাই হতবাক হয়ে পড়ছে।’ আলব্রেখট কনজে বলেন, ‘রাষ্ট্র যখন এমন হুমকির মুখে, তখন কি প্রধান দুই দলের ঐকমত্য জরুরি নয়? প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোতে অসাম্প্রদায়িক চেতনার নেতাদের উচ্চকণ্ঠ হওয়াটা বাঞ্ছনীয় নয়?’
ঢাকায় জার্মানির শীর্ষ এই কূটনীতিক মনে করেন, হেফাজতে ইসলামের ১৩ দফা দাবি সংবিধানের চেতনার সঙ্গে সংগতিপূর্ণ নয়। হেফাজতের ১৩ দফা দাবি মেনে নিলে নারীর ক্ষমতায়নের পথ রুদ্ধ হবে।
সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়ে জার্মান রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘সম্প্রতি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর যে ধরনের হুমকি সৃষ্টি করা হয়েছে, তা আমাদের সবাইকে উদ্বিগ্ন করেছে। সংখ্যালঘুরা অতীতে কখনো নিজেদের এভাবে বিপন্ন মনে করেনি।’ [সূত্র: প্রথম আলো]

লিঙ্ক