এবারের ভালবাসা দিবসে জার্মানিতে বসবাস রত এক দম্পতিকে শুভেচ্ছা
মোনাজ হক , সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৫


এবারের ভালবাসা দিবসে জার্মানিতে বসবাস রত এক বাঙালি দম্পতিকে পাঠকদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবার প্রাক্কালে নিবন্ধটির একটি যথাযথ ভূমিকা খুজতে গিয়ে প্রথমেই যে দুটি মানব বৈশিষ্ট্য নিয়ে আলোকপাত করতে হয় সেগুলো হলো -সাফল্য আর সম্পদ- এই দুটি জিনিষ ভালবাসার সাথে সম্পুরক ভাবে জড়িত। ভালবাসা যেমন জোর করে আদায় করা যায়না তেমনি সাফল্য এবং সম্পদ ও জোর করে অর্জন করা যায়না।
সম্প্রতি এক বাঙালিদের আড্ডায় মহুয়া ও হেলাল এর সাথে দেখা, একথা সেকথা তার পরে জানলাম হেলাল এখন এক জার্মান সেবা সংস্থার নির্বাহী পরিচালকের দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে। জার্মানিতে বসবাসকারী একজন বিদেশীর পক্ষে একটি প্রতিষ্ঠান, যেখানে প্রায় ৬ হাজার কর্মচারী কাজ করে সেটার নির্বাহী পরিচালকের দায়িত্ব পাওয়াটা যে কোনো কাকতালীয় ঘটনা নয়, তার প্রমান সয়ং আমাদের হেলাল। অর্থনীতিতে সর্বোচ্চ বিদ্যা অর্জন (ডক্টরেট) শেষ করে হেলাল পনের বছর আগে ফিনান্স ডিরেক্টর হিসেবে "কাসা রেহা" সেবা প্রতিষ্ঠানে যোগ দেয়, দশ টি বছর তার একনিষ্ঠতা ও দক্ষতার পথ পেরিয়েই আজ সে, ড: হুমায়ুন কবীর হেলাল, প্রধান নির্বাহী হিসেবে কাজ করছে।
আর মহুয়া বার্লিনের সংস্কৃতি অঙ্গনে এক অভিন্ন ব্যক্তিত্ব, যদিও ওরা ওদের কর্ম ক্ষেত্র বার্লিন থেকে সাতশ কিলোমিটার দুরে ফ্রাঙ্কফুর্ট এ বসবাস করে তবুও বার্লিনের কার্নিভাল বা বাংলা নববর্ষের অনুষ্ঠানে মহুয়া আর হেলালের অনুপস্থিতি কল্পনা করা যায়না।
দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের পরথেকেই জার্মানিতে নানা দেশের বহু বর্ণের মানুষ একত্রে বাস করে আসছে আর সেই সুবাদেই সমাজের বিভিন্ন স্তরে বিদেশীদের অংশগ্রহন লক্ষণীয়। জার্মান রাজনীতিতে তুরস্কের দ্বিতীয় জেনারেশন এর মানুষ বহুদিন থেকেই সক্রিয় ভূমিকায় আছেন। অর্থনীতিতেও এর ব্যতিক্রম নেই। ভারতীয় বংশোদভূত ব্যাংকার অংশু জেইন জার্মানির সবচাইতে বৃহত্তর ব্যাঙ্ক "ডয়েচে ব্যাঙ্ক" এর প্রধান নির্বাহী আজ দুবছর থেকে সাফল্যের সাথেই তাঁর দায়িত্ব পালন করছেন।
আত্মনিবিষ্ট চিন্তা এবং মতাদর্শ দুরে সরিয়ে বাংলাদেশী বংশোদভূত রাও জার্মান অর্থনৈতক উন্নয়নে কোনো অংশে কমে নেই, "ইন্ডিয়ান রেস্টুরেন্ট" ব্যবসায় বাঙালিদের অগ্রণী ভূমিকাও উল্লেখযোগ্য, একমাত্র বার্লিন শহরেই প্রায় ৩০০ টি ইন্ডিয়ান রেস্টুরেন্ট এর প্রায় ২০০ টির মালিকই বাংলাদেশী, এছাড়াও ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার অথবা অর্থনীতিবিদরাও তাঁদের নিজস্ব কর্মক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই। দম্পতি হেলাল আর মহুয়ার সাফল্য জার্মানির বাঙালি সমাজে এক সবিশেষ উল্লেখযোগ্য ঘটনা, আর তাই এবারের ভালবাসা দিবসে (ভ্যালেনটাইনস ডে) বার্লিন থেকে প্রকাশিত আজকের বাংলা পত্রিকা মহুয়া ও হেলাল কে বিশেষ ভাবে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে।
> See more at: http://www.ajkerbangla.com/details.php?id=2416&pageName=14

লিঙ্ক